Breaking News

ওডিআই ক্রিকেট ইতিহাসে পাঁচটি সর্বোচ্চ দলীয় রান দেখুন

বরাবরই আমাদের দেশে ক্রিকেটকে উৎসব হিসাবে দেখা হয়। পাড়ার গলির ক্রিকেট ম্যাচ হোক বা স্টেডিয়ামের ম্যাচ ভারতীয় ফ্যান সবজায়গায় ভরপুর দেখতে পাওয়া যায়। বর্তমানে খেলার জগতে ক্রিকেট বিশেষ স্থান অর্জন করেছে।

ক্রিকেট প্রধানত ৩ টি ফরম্যাটে বিভক্ত। যেখানে রয়েছে টেস্ট, ওডিআই, টি টোয়েন্টি। বর্তমানে টি টোয়েন্টি সব থেকে জনপ্রিয় হলেও ওডিআই ক্রিকেট এর গুরুত্ব কোনো অংশে কমে যায় নি। ক্রিকেটে সময় সময় এমন কিছু রেকর্ড তৈরি হয় যা হয়ত পরে ভাঙা কঠিন। আজ সেরকমই কিছু রেকর্ডের কথা আলোচনা করতে চলেছি। জানেন ওডিআই ক্রিকেটের ইতিহাসে সেরা ৫ টি দলীয় রান কোনগুলি? চলুন তাহলে দেরি না করে দেখে নেওয়া যাক-

৫. দক্ষিণ আফ্রিকা ( ৪৩৮ রান) : ১২ মার্চ ২০০৬ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা বনাম অস্ট্রেলিয়া টিমের মধ্যে অনুষ্ঠিত ওডিআই ম্যাচে ৯ উইকেট হারিয়ে ৪৩৮ রান করেন দক্ষিণ আফ্রিকা দল। দক্ষিণ আফ্রিকার অন্যতম ব্যাটসম্যান হার্সেল গিবস ১১১ বলে ১৭৫ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন।

৪. দক্ষিণ আফ্রিকা ( ৪৩৯ রান ) : দিনটি ছিল ২০১৫ সালের ১৮ই জানুয়ারি। দক্ষিণ আফ্রিকা বনাম ভারতের মধ্যে ম্যাচ। বিশ্ব ক্রিকেটের ইতিহাসে দিনটি বরাবর স্মরণীয় হয়ে থাকবে এ বি ডেভিলায়ার্স এর নামে। ডেভেলিয়ার্স ৩১ বলে ১০০ রান করেন এই ম্যাচে।

৩. শ্রীলঙ্কা ( ৪৪৩ রান ) : ২০০৬ সালে নেদারল্যান্ডস দলের বিরুদ্ধে খেলতে নেমে শ্রীলঙ্কা ৫০ ওভারে ৯ উইকেটে ৪৪৩ রান করেন। যেটি শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট টিমের জন্য একটি রেকর্ড। যেখানে সনৎ জয়সূর্য ১০৪ বলে ১৫৩ রান এবং তিলকরত্ন দিলশান ৭৮ বলে ১১৭ রান করেন।

২. ইংল্যান্ড ( ৪৪৪ রান ) : আজ থেকে ৪ বছর আগের কথা। ওডিআই ম্যাচটি ছিল ৩০ আগস্ট ২০১৬ ইংল্যান্ড বনাম পাকিস্তান দলের মধ্যে। যেখানে ইংল্যান্ড টিম ৪৪৪ রানের বিশাল রান সংগ্রহ করেন। এলেক্স হেলস ১২২ বলে ১৭১ রানের ইনিংস খেলেন।

১. ইংল্যান্ড ( ৪৮১ রান ) : ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হয় ২০১৮ সালে ইংল্যান্ড বনাম অস্ট্রেলিয়া। যেখানে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৬ উইকেটে ৪৮১ রানের বিশাল রান সংগ্রহ করেন ইংল্যান্ড টিম। ওডিআই ক্রিকেটের ইতিহাসে এখনো পর্যন্ত এটিই সর্বোচ্চ দলীয় রান।

Check Also

আই পি এল-এ ধোনির তিনটি রেকর্ড যা এখনো কেউ ভাঙতে পারেনি

মহেন্দ্র সিং ধোনি নামের সাথে অপরিচিত কেউ নেই। ক্যাপ্টেন কুল, ফিনিশার, মাহি, থালা সব নামেই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *