মুম্বাই পাড়ি দিলো মিঠাই! সৌমিতৃষার বদলে দেখা যাবে দেবত্তমাকে

0
362

বিজ্ঞানী ভিনটন জি কার্ফকে ইন্টারনেটের জনক বা আবিষ্কারক বলা হয়। ইন্টারনেট আবিষ্কারের পর এটির সবথেকে যুগান্তকারী অবদান হল সোশ্যাল মিডিয়া। এই আধুনিক যুগে ঘরে বসে বিনোদনের মূলমন্ত্র হয়ে উঠেছে এই সোশ্যাল মিডিয়া।

প্রতিদিন বিভিন্ন ধরনের ভিডিও আমরা ভাইরাল হতে দেখি। সারাদিনের বেশ খানিকটা সময় আমরা সোশ্যাল মিডিয়াতে ব্যয় করে থাকি এই সমস্ত ভাইরাল ভিডিওগুলি দেখে। করোনা মহামারীর সময় যখন সারা দেশজুড়ে লকডাউন চলছিল সেই সময়ে সোশ্যাল মিডিয়ার চাহিদা এবং গুরুত্ব দুটোই বেড়ে যায়।

গৃহবন্দী মানুষ তখন নিজেকে ব্যস্ত রাখতে সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন কার্যকলাপ করে পোস্ট করতে শুরু করে। নিমেষের মধ্যে সেই সকল পোস্ট ভাইরাল হয়ে গিয়ে বেশ কিছু ইনকাম শুরু হয়।

গত এক বছর ধরে নিঃসন্দেহে বাংলার অন্যতম সেরা ধারাবাহিক মিঠাই। সমালোচকেরা সেই কথা স্বীকার না করলেও প্রতি সপ্তাহের রেটিং চার্ট অন্তত তার প্রমাণ দিয়ে যায়। বিগত এক বছর ধরে টিআরপিতে একক রাজত্ব করেছে মিঠাই। অন্যান্য সিরিয়াল ধারে কাছে আসতে পারিনি।

যদিও বর্তমানে রেটিং-এ কিছুটা ভাটা এসেছে।অনুরাগীদের কথায় গল্পের গতিতে এক টুকরো মেঘ জমে নি, বরং পাহাড়ের কোলে সিদ্ধার্থ এবং মিঠাই এর জমজমাট রোমান্সে দুরন্ত গতিতে এগোচ্ছে গল্প। গত সপ্তাহে ৯.৪ টিআরপি নিয়ে মন ফাগুনের সঙ্গে যুগ্মভাবে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেছে মিঠাই।

ধারাবাহিকের এই সাফল্য দেখে লক্ষীলাভের আশায় এবার চলে এল মিঠাই এর হিন্দি রিমেক। বর্তমানে বেশ কিছু ভাষায় জনপ্রিয় হয়েছে মিঠাই এর রিমেক। এরইমধ্যে মিঠাইয়ের ওড়িয়া রিমেক প্রতি সপ্তাহে চমক দেখাচ্ছে টিআরপিতে।

সম্প্রতি প্রকাশ পেয়েছে মিঠাই এর টিজার জিটিভিতে। মিঠাই এর চরিত্রে অভিনয় করবেন বঙ্গতনয়া দেবত্তমা সাহা এবং আশীষ ভরদ্বাজ। দেবত্তমার প্রথম কাজ ‘এ আমার গুরুদক্ষিণা’। তারপর তিনি পাড়ি দেন মুম্বাইয়ে। সম্প্রতি তাকে দেখা গিয়েছিল মোহরের হিন্দি রিমেক ‘শোরয়া এবং আনোখি কী কাহানি’-তে।

প্রোমোতে দোল উৎসবের আমেজে খোশমেজাজে আনন্দ করতে দেখা যাচ্ছে মিঠাই কে। মনোহরার পরিবর্তে এই মিঠাই ফেরি করে জিলিপি। রাত আটটা বাজলেই গত এক বছর ধরে বাঙালির ড্রইংরুমে একটাই গান শোনা যাচ্ছে, ” ভালবাসতে আসছে তোমায়, তার নাম মিঠাই।” মিঠাই এবং সিদ্ধার্থের জুটি মাছে ভাতে বাঙালি অন্যতম চর্চার বিষয়।

ইতিমধ্যে, পাহাড়ের কোলে মিঠাই এর প্রতি সিদ্ধার্থের প্রেম নিবেদনে মুগ্ধ দর্শক বৃন্দ। আশীষ এবং দেবত্তমা তাদেরকে ছাপিয়ে উঠতে পারেন কিনা সেটাই দেখার। আগামী ১৪ই মার্চ থেকে সোম থেকে শনি জি টিভির পর্দায় দেখা যাবে মিঠাই কে। বেশকিছু বাংলা ধারাবাহিকের রিমেক রীতিমতো দাপিয়ে বেড়াচ্ছে টিআরপি চার্টে। শ্রীময়ীর রিমেক অনুপমা গত দেড় বছর ধরে শীর্ষস্থান দখল করে রেখেছে। মিঠাই কি বাংলার ধারা বজায় রেখে ছাপ ফেলতে পারবে?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here