“আমি মুখ্যমন্ত্রীর বিরোধী নই” বিজেপিতে যোগদান করেও মমতা প্রীতি অভিনেত্রী পায়েল সরকারের

0
139

টলিউডে বর্তমানে ভোটের হাওয়া এবং এই মুহূর্তে বহু টলিউডের তারকা এক পার্টি থেকে অন্য পার্টিতে চলে যাচ্ছেন। যোগ দিচ্ছেন বহু নতুন মুখেরা এবং রং পাল্টে যাচ্ছে তাদের রাজনীতির।

সম্প্রতি ঘোষিত বামপন্থী সায়নী ঘোষ যোগ দিলেন তৃণমূলে। আবার অন্যদিকে, তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগদান করলেন রুদ্রনীল ঘোষ। তারই মধ্যে এবারে বিজেপিতে যোগদান করলেন বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী পায়েল সরকার। পায়েলের বিজেপিতে যোগদানের পর উত্তাল নেট জনতা।

বৃহস্পতিবার সকালে হেস্টিংস সোনার বাংলা প্রকল্প উদ্বোধনের মাধ্যমে অভিনেত্রী পায়েল সরকার বিজেপির পতাকা হাতে তুলে নিয়েছেন। রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ তাঁর হাতে বিজেপির পতাকা তুলে দিয়েছেন। অত্যন্ত অপ্রত্যাশিতভাবে এই সিদ্ধান্তের পর এই চমকে গিয়েছে রাজনৈতিক মহল।

পায়েল সরকার বলেছেন, “এতদিন রুপোলি পর্দায় দর্শকদের মনোরঞ্জন করে এসেছি। দর্শকেরা আমাকে অনেক ভালোবাসা দিয়েছ এবং এবারে সময় এসেছে তাদের ভালবাসার যোগ্য সম্মান দেওয়ার।

সমাজের জন্য যদি কিছু ভাল করতে হয় তাহলে তো একার পক্ষে করা সম্ভব নয়। শুধু তাই নয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি যে নীতি এবং আদর্শ মেনে চলেন সেই আদর্শে আমি বিশ্বাসী। তাই আমার কাছে মনে হয়েছে এই দলের সঙ্গে কাজ করা আমার কাছে উপযুক্ত জায়গা।”

এবারে কি আপনি ভোটের কাজে প্রস্তুতি নেবেন? সেই প্রশ্নের উত্তরে পায়েল সরকার জানিয়েছেন, আমার এজেন্ডা স্পষ্ট। আমি মন পরিষ্কার রেখে কাজ করে যেতে চাই এবং রাজ্যবাসীর জীবন আরো সুন্দর করে তুলতে চাই।

কে কি বলছে তাতে মাথা না ঘামিয়ে নিজের সেরাটা দিয়ে যাওয়া আমার মূল লক্ষ্য। অন্যদিকে অভিনয় প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, তিনি কখনোই অভিনয় ছাড়ছেন না। পাশাপাশি সমাজের জন্য তিনি কাজ করবেন।

অন্যদিকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে নিয়ে তিনি কোনরূপ বিরূপ মন্তব্য করতে পছন্দ করলেন না। তিনি বললেন, “মুখ্যমন্ত্রীর বিরোধিতা করবো বলে আমি বিজেপিতে যাইনি। তার কাজের ক্ষেত্রে সক্ষমতা নিয়ে আমি কিছু বলতে পারি না।

সব থেকে বড় কথা হল বাংলার জনগণ কি চাইছেন এবং মানুষ যাকে চাইছেন তিনি মুখ্যমন্ত্রী হবেন। আমার আদর্শ নরেন্দ্র মোদির আদর্শের সঙ্গে মেলে। তাই আমি ওনার আদর্শ মেনে নিয়ে কাজ করে যাব।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here