বিয়ের জন্য ধর্মান্তকরণ করা হলে শাস্তি মিলবে, উত্তরপ্রদেশে পাস হলো লাভ জিহাদ বিল

0
82

উত্তরপ্রদেশে সম্প্রতি পাস হয়ে গেল লাভ জিহাদ বিল। ধ্বনি ভোটে বিলটি পাশ হয়ে যায় উত্তর প্রদেশ বিধানসভায়। নভেম্বর মাসের ২৮ তারিখে একটি অর্ডিন্যান্স পাস করেছিলেন যোগী আদিত্যনাথ সরকার।

আর এই দিন সেই অর্ডিন্যান্স আইনে পরিণত হল। যদিও, এই আইন নিয়ে এখনো পর্যন্ত বিস্তর বিতর্ক রয়েছে। এর সাংবিধানিক বৈধতা খতিয়ে দেখছে এখনও সুপ্রিম কোর্ট।

নতুন আইন অনুযায়ী বিয়ের জন্য কোন মহিলার ধর্মান্তকরণ করা হলে তা বাতিল বলে ঘোষিত করা হবে বলে জানা যাচ্ছে। পাশাপাশি যদি বিয়ের পর ধর্ম বদলানো হয় তাহলে জেলা শাসকের কাছে আবেদন জানাতে হবে।

কোন রকম প্রতারণা প্রলোভন দেখিয়ে জোর করে ধর্মান্তকরণ করা যাবে না বলে জানানো হয়েছে। এরকম যদি হয় তাহলে অভিযুক্তের ৩ থেকে ১০ বছর পর্যন্ত শাস্তি হতে পারে। এছাড়াও ২৫ হাজার টাকা জরিমানা ঘোষণা করা হবে।

তবেএই ধর্মান্তকরণ বিরোধী আইন কে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করেছে স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা সিটিজেন ফর জাস্টিস এন্ড পিস। পাশাপাশি এই আইনের ওপর স্থগিতাদেশ জারি করার আর্জি করেছিলেন আইনজীবী তিস্তা সেলভেস্তা এবং বিশাল ঠাকরে। কিন্তু সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি তাদের এই আর্জি খারিজ করে দেন।

চার সপ্তাহের মধ্যে জবাব তলব করা হয়েছিল। তারই মধ্যে উত্তর প্রদেশ বিধানসভায় এই বিল পাস হয়ে গেল। আগামী বছর উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচন। তার আগেই যোগী সরকারের এই নতুন পদক্ষেপ অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে ওয়াকিবহালরা।

অন্যদিকে সমাজের একাংশের অভিযোগ, উত্তরপ্রদেশে পাস হওয়া সভায় আইন সমাজ এবং সংবিধানের চরিত্র বদলাতে পারে।

সমাজের একশ্রেণীর মানুষ এই আইন কে হাতিয়ার করে মিথ্যা অভিযোগে ফাঁসি দিতে পারে প্রতিপক্ষকে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। যদিও তাদের কোনো কথায় কান দিতে চাইছেন না উত্তরপ্রদেশের প্রধানমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here